মাধ্যমিক

নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২

আপনি যদি ইতিমধ্যে নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর গুরুত্বপূর্ণ ২০২২ অনুসন্ধান করে থাকেন তবে সঠিক জায়গায় এসেছেন। গল্প অবলম্বনে প্রশ্নের উত্তর গুলো পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে। আপনাদের সিলেবাস ও পাঠ্য সম্পর্কিত আরো প্রশ্নোত্তর ও আমাদের সাইটে খুঁজে পাবেন। চলুন শুরু করা যাক।

নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ১

বৃদ্ধ বয়সে মানুষের একটু বাড়তি যত্ন-আত্তির দরকার। কিন্তু আবদুল জলিল ছৈয়ালের (৮০) ভাগ্যটা অন্য রকম। একমাত্র ছেলের সংসারে ঠাই হয়নি। তার ঠিকানা হয়েছে। ফরিদপুর শহরের টেপাখােলায় বৃদ্ধদের জন্য নির্মিত শান্তি নিবাসে। তিন বছরে একবারও দেখা করতে আসেনি ছেলে। ছেলের অপেক্ষায় প্রহর যেন আর কাটে না তার। গতকাল সকালে ছবি তুলেছেন আলীমুজ্জামান।

 ক. ‘প্রবাসী’ কিসের নাম?

খ. “আবর্জনা জমে এসে চারিদিকে।”- কেন?

গ. উদ্দীপকের ঘটনা ‘নিমগাছ’ গল্পের ঘটনা থেকে কোন জায়গায় আলাদা তা নির্দেশ কর। 

ঘ. “ঘটনা আলাদা হলেও উদ্দীপকের ছৈয়াল এবং ‘নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মী বউয়ের বাস্তবতা এক।” মন্তব্যটি বিচার কর। 

উপরোক্ত তথ্য অনুযায়ী নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর সম্পর্কিত এই আর্টিকেলে সৃজনশীল প্রশ্নগুলো কেমন হতে পারে তা আপনি দেখে নিয়েছেন। চলুন এবার তবে প্রশ্নের উত্তর সমাধান গুলোও PDF সহ দেখে নেওয়া যাক।

গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর পেতে এখানে চাপুন

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ১ এর উত্তর সমূহ

ক উত্তরঃ ‘প্রবাসী’ একটি পত্রিকার নাম।

খ উত্তরঃ প্রশ্নের উক্তিতে নিমগাছের চারদিকে আবর্জনা জমার কথা বলা হয়েছে। কারণ অযত্নে অবহেলায় সেখানে আবর্জনা জমে।

‘নিমগাছ’ একটি প্রতীকী গল্প । এখানে নিমগাছের প্রতীকে এক গৃহবধূর সংসারজীবন তুলে ধরা হয়েছে। নিমগাছ মানুষের নানা কাজে লাগে। অথচ এ গাছটির প্রতি কেউ তেমন কোনাে দায়িত্ব পালন বা যত্ন করে না। কেউ গাছটিকে যথাযথ বেড়ে ওঠার সুযােগ করে দেয় না। ফলে গাছটির চারদিকে আবর্জনা জমে।

সারকথা : নিয়মিত পরিচর্যা না করায় নিমগাছের চারদিকে আবর্জনা জমে।

গ উত্তরঃ স্থানগত বিভেদে উদ্দীপকের ঘটনা নিমগাছ’ গল্পের ঘটনা থেকে আলাদা • আজকের শিশু যেমন আগামী দিনের যুবক, তেমনই আজকের যুবক আগামী দিনের বৃদ্ধ। বৃদ্ধকাল সবাইকেই অতিবাহিত করতে হবে। সে কারণে বয়স্ক বলে কাউকে করুণা নয়, শ্রদ্ধার চোখে দেখা উচিত।

নিমগাছ’ গল্পে নিমগাছের প্রতীকে এমন এক লক্ষ্মী বউয়ের জীবন সম্পর্কে বর্ণনা করা হয়েছে, যে বউ শ্বশুরবাড়িতে নিজের শ্রমে ও সেবায় সেই বাড়ির সবাইকে খুশি করেছে, সুখী করার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়েছে। অথচ উপকারী নিমগাছটির মতােই সেই বউয়ের কপালে জুটেছে শুধুই অবহেলা আর বনা।

See also  মমতাদি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

নিমগাছের মতাে নিজের মুক্তির কথা চিন্তা করলেও সেই সংসার থেকে সে আর বের হতে পারেনি। উদ্দীপকে এমনই এক বঞ্চিত বাবার ছবি আমরা দেখতে পাই, যাকে আশি বছর বয়সে স্থান নিতে হয় শান্তি নিবাস’ বৃদ্ধাশ্রমে। প্রতিষ্ঠিত ছেলের নিজস্ব সংসার থাকলেও সেই সংসারে তার ঠাই হয়নি।

কিন্তু নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মীবউকে তার বাড়ি ছাড়তে হয়নি। নিমগাছের মতাে নিজের শেকড় সেই সংসারের এতই গভীরে গ্রথিত করেছেন যে, সেই বাড়িতে থেকেই তাকে উদ্দীপকের আবদুল জলিল ছৈয়ালের মতাে বনা ও অপমান সহ্য করতে হবে। এখানেই উভয় ঘটনায় স্থানগত বৈসাদৃশ্যটি ধরা পড়ে।

সারকথা : উদ্দীপকের বৃদ্ধ ব্যক্তিটির ঠাই হয়েছে বৃদ্ধাশ্রমে, ‘নিমগাছ’ গল্পের বউটি পরিবার ছেড়ে বাইরে আসতে পারেননি।

হুবুহু সৃজনশীল প্রশ্ন খবুই কম কমন পড়তে দেখা যায় । তাই এই পোষ্ট নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর pdf এর পাশাপাশি মূল বই থেকে এ সম্পর্কিত আরও বিষয়বলী গুলো ধারণা রাখুন। এতে করে যেভাবেই প্রশ্ন আসুক যাতে আপনি উত্তর দিতে পারেন। চলুন বাকী অংশ পড়ে নেওয়া যাক।

ঘ উত্তরঃ “ঘটনা আলাদা হলেও জীবনের করুণ পরিণতিতে উদ্দীপকের ছৈয়াল এবং নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মী বউয়ের বাস্তবতা এক।”- মন্তব্যটি যথার্থ । আমাদের সমাজে অনেক ক্ষেত্রেই বয়স্ক ব্যক্তিরা উপেক্ষার শিকার হন। এটি অনেক বড় অপরাধ। কেননা এতে তারা প্রচণ্ড কষ্ট পান।

একইভাবে সংসারে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেন, তাদের শ্রদ্ধা ও সম্মান করা উচিত। ‘নিমগাছ’ গল্পে সর্বাঙ্গ উপকারী এক নিমগাছের কথা বলা হয়েছে। নিমগাছের প্রায় প্রতিটি অংশই মানুষের উপকারে লাগে। মানুষ ইচ্ছামতাে তা ব্যবহারও করে। অথচ কেউ গাছটির যত্ন নেয় না।

নিমগাছ’ গল্পের ম্যাজিক বাক্যটির মধ্য দিয়ে নিমগাছটির প্রতীকে গৃহকর্মনিপুণা লক্ষ্মীবউয়ের অবস্থা তুলে ধরা হয়েছে। এই বউটিও নিজের জীবনের প্রায় সবটুকু বিলিয়ে দিয়েছে বাড়ির মানুষদের কল্যাণের জন্য। অথচ কেউ তার ব্যক্তিগত অনুভূতির কথা জানতে চায়নি কিংবা খোজখবর নেয়নি।

উদ্দীপকে দেখা যায় বৃদ্ধাশ্রমের লােহার গেট ধরে চশমা চোখে দাঁড়িয়ে আছেন আশি বছরের বৃদ্ধ আবদুল জলিল ছৈয়াল। এই বয়সে তাঁর সেবা-যত্ন দরকার। কিন্তু তার পরিবর্তে পেয়েছেন সন্তানের অবহেলা। গত তিন বছরে তার সন্তান তাকে একবারও দেখতে আসেনি।

তবুও ছেলের জন্য অপেক্ষার প্রহর গােনেন ছৈয়াল! ‘নিমগাছ’ গল্পে মুক্তি চাইলেও নিমগাছটির মতাে সংসার-জাল ছিন্ন করতে পারেননি লক্ষ্মীবউটি। ফলে তাকে তার বাড়িতেই থাকতে হয়েছে অনাদর আর অবহেলায়। অন্যদিকে আশি বছরের বৃদ্ধ আবদুল জলিল ছৈয়ালের সমর্থ সন্তান থাকার পরেও তার স্থান হয় বৃদ্ধাশ্রমে।

See also  মানুষ মুহম্মদ (স) প্রবন্ধের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

প্রকৃতপক্ষে বাড়ি ছেড়ে যেমন ছৈয়াল মুক্তি পাননি, তেমনই বাড়িতে থেকেও মুক্তি পাননি লক্ষ্মীবউটি! তাই ঘটনা আলাদা হলেও তাদের উভয়ের জীবনের বাস্তবতা এক। 

সারকথা : উদ্দীপকের ছৈয়াল ও নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মীবউ উভয়েই অক্লান্ত পরিশ্রম ও ত্যাগের বিনিময়ে পেয়েছেন বঞ্চনা আর অবহেলা।

প্রিয় পাঠক আপনি ইতিমধ্যে আমাদের সাইটের মাধ্যমে নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর ১টি পূর্ণাঙ্গ সম্পন্ন করেছেন। চলুন এ সম্পর্কিত আরও একটি দেখে নেওয়া যাক।

গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর পেতে এখানে চাপুন

নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ২

নারীর বৃত্তাবদ্ধ জীবন-এর আলােকে প্রণীত এ সংসারে এসেছিলেম ন বছরের মেয়ে তার পরে এই পরিবারের দীর্ঘ গলি বেয়ে দশের ইচ্ছা-বােঝাই করা এই জীবনটা টেনে টেনে শেষে পৌছিনু আজ পথের প্রান্তে এসে। সুখের দুখের কথা একটুখানি ভাবব এমন সময় ছিল কোথা!

ক. যকৃতের পক্ষে কোনটি খুব উপকারী?

খ. “একঝাক নক্ষত্র নেমে এসেছে যেন নীল আকাশ থেকে সবুজ সায়রে”- এখানে একঝক নক্ষত্র’ বলতে কী বােঝানাে হয়েছে? 

গ. নিমগাছ’ গল্পের সাথে উদ্দীপকের সাদৃশ্য নির্ণয় কর। 

ঘ. উদ্দীপকের গৃহবধূর জীবন আর নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মীবউটার জীবন একই সূত্রে গাঁথা।”- মন্তব্যটির সত্যতা | নিরূপণ কর।

প্রিয় পাঠক আপনি ইতিমধ্যে আমাদের সাইটের মাধ্যমে নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর ১টি পূর্ণাঙ্গ সম্পন্ন করেছেন। চলুন এ সম্পর্কিত আরও একটি দেখে নেওয়া যাক।

গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর পেতে এখানে চাপুন

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ২ এর উত্তর সমূহ

ক উত্তরঃ যকৃতের পক্ষে নিমপাতা খুব উপকারী।

খ উত্তরঃ “একঝাঁক নক্ষত্র নেমে এসেছে যেন নীল আকাশ থেকে সবুজ সায়রে!”- এখানে একঝাক নক্ষত্র’ বলতে নিমফুলের সৌন্দর্যকে বােঝানাে হয়েছে।

নিমগাছে থােকা থােকা ফুল ধরে। ফুলের রং সাদা, আকারে ক্ষুদ্র। নিমগাছের মাথাজুড়ে সাদা সাদা ফুলের থােকা ঝুলে থাকে। ফুলের সুবাসে চারদিক মাতােয়ারা হয়। নিমপাতা সবুজ। আকাশের বুকে যেমন নক্ষত্র ফুটে থাকে রাতের বেলায়, দূর থেকে ফুলযুক্ত নিমগাছের দিকে তাকালেও সেরকম নক্ষত্র মনে হয়। আলােচ্য লাইনে ‘একঝাঁক নক্ষত্র’ বলতে সেটিই বােঝানাে হয়েছে।

সারকথা : ‘একঝাঁক নক্ষত্র’ বলতে নিমগাছে ফুটে থাকা ফুলের গুচ্ছকে বােঝানাে হয়েছে।

গ উত্তরঃ একজন গৃহবধূর বৃত্তাবদ্ধ জীবন উপস্থাপনে উদ্দীপকটি ‘নিমগাছ’ গল্পের সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ।

একটি পরিবারের সবকিছুর দায়িত্ব ন্যস্ত থাকে একজন গৃহবধূর ওপর। সংসার বৃত্তের মধ্যেই এগিয়ে চলে তার জীবন, কেটে যায় দীর্ঘ সময়। এই দীর্ঘ সময়ের তলে চাপা পড়ে যায় তার ব্যক্তিগত সব ভালাে লাগা, মন্দ লাগা, ইচ্ছা-অনিচ্ছা।

See also  মানুষ কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

‘নিমগাছ’ গল্পে নিমগাছের রূপকে মূলত গৃহকর্ম-নিপুণা এক গৃহবধূর জীবনচিত্র অঙ্কিত হয়েছে। গৃহের গণ্ডিতে আবদ্ধ তার জীবন। পরিবারের প্রতিটি মানুষের জন্য তিনি অহর্নিশ কাজ করেন; বিসর্জন দেন নিজের সব ইচ্ছা, ভালাে লাগা ।

কিন্তু বিনিময়ে তিনি পান না কিছুই। উদ্দীপকের গৃহবধূরও একই অবস্থা। নয় বছর বয়সে বউ হয়ে সংসারে আসেন, আর তারপর কেটে গেছে অনেক বছর। দশের ইচ্ছা পূরণ করতে করতে নিজের ইচ্ছার কথা ভাবারই সময় পাননি তিনি।

সারকথা : গৃহবধূর বৃত্তবদ্ধ জীবন এবং সেই জীবনে অন্যের ইচ্ছাকে গুরুত্ব দিতে গিয়ে নিজের ইচ্ছা বিসর্জন দেওয়ার বিষয়ে উদ্দীপক ও ‘নিমগাছ’ গল্পের মধ্যে সাদৃশ্য বিদ্যমান।

আপনি এই পোষ্টে নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর  নিয়ে পড়তেছেন। এটি পূর্ণাঙ্গ পড়া শেষে আপনি এ সম্পর্কিত আরও পাঠ্য আমাদের সাইটে খুঁজে পেতে সার্চ বক্সে অনুসন্ধান করতে পারেন। চলুন বাকী অংশ পড়ে নেওয়া যাক।

ঘ উত্তরঃ “উদ্দীপকের গৃহবধুর জীবন আর “নিমগাছ‘ গল্পের লক্ষ্মীবউটার জীবন একই সূত্রে গাঁথা।”_ মন্তব্যটি যথার্থ। সংসারের বেড়াজালে একবার আটকে গেলে একজন নারীর পক্ষে সে বেড়াজাল ছিন্ন করা সম্ভব হয় না।

সংসরের নানা দায়-দায়িত্ব তার কাঁধে চাপে। ইচ্ছা করলেও তিনি সেগুলাে এড়াতে পারেন না। খুব কম নারীই তার পরিশ্রম, সেবা ও ত্যাগের বিনিময়ে সংসার থেকে কিছু পান।

‘নিমগাছ’ গল্পের গৃহবধূ সংসারে যেন এক যন্ত্রে পরিণত হয়েছেন। সবার আত্মতৃপ্তির জন্য তিনি সংসারের সব কাজ করে যান। নিজে কষ্ট সহ্য করে সবাইকে খুশি রাখেন।

ইচ্ছা করলেও তিনি এই বন্ধন ছিন্ন করতে পারেন না। উদ্দীপকের গৃহবধূর অবস্থাও অনুরূপ। তিনিও পরিবারের সবার ইচ্ছা পূরণ করে চলছেন। নিজের জীবন টেনে নিয়ে চলেছেন দীর্ঘ সময় ধরে। তিনি নিজ সুখের কথা ভেবে পরিবারের বন্ধন ছিন্ন করতে পারেননি।

উদ্দীপকের গৃহবধূ এবং ‘নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মীবউ উভয়ের জীবনই সংসারের বৃত্তে আবদ্ধ। সেই বৃত্তে তারা এমনভাবে আবদ্ধ যে, চাইলেও সেখান থেকে তারা বের হতে পারেন না। এভাবে তাদের জীবন একসূত্রে গাঁথা।

সারকথা : সংসারের গণ্ডিতে আবদ্ধ থাকা এবং দায়িত্ববােধ ও দায়বদ্ধতার কারণে সেই গণ্ডি থেকে বের হতে না পারার বিবেচনায় স্য উদ্দীপকের গৃহবধূ এবং ‘নিমগাছ’ গল্পের লক্ষ্মীবউটার জীবন একসূত্রে গাঁথা।

প্রিয় পাঠক আশাকরি আপনার কাঙ্খিত তথ্য নিমগাছ গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২ আমাদের সাইটের মাধ্যমে সহজেই বুঝে নিতে পেরেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button