উচ্চ মাধ্যমিক

মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

ধন্যবাদ আপনার অনুসন্ধানের জন্য এবং আমাদের সাইটে ভিজিট করার জন্য। আপনি যদি ইতিমধ্যে অনুসন্ধান করে থাকেন মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২ নিয়ে তবে সঠিক জায়গায় এসেছেন। প্রশ্নের উত্তর গুলো পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে আপনাদের পড়ার সুবিধার্থে। আপনাদের সিলেবাসের উপর ভিত্তি করে পাঠ্য সম্পর্কিত আরো প্রশ্নোত্তর ও আমাদের সাইটে খুঁজে পাবেন। চলুন শুরু করা যাক।

মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর ২০২২

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ১

যারা দুর্বল, যারা সাধারণ তাদেরকে নানা প্রকার প্রতিকূলতা সহ্য করতে হয়। অন্যায়কারী দুর্বলকে খোজে অন্যায় করার ললাভে। দুর্বল হয়তাে কখনাে মাথা পেতে নেয়, সহ্য করে । কিন্তু দুর্বল যেদিন জেগে ওঠে, ক্ষেপে যায়, সেদিন অসুরের শক্তি ভর করে তাদের শরীরে।

ক. বুড়াে রহমানের মেয়ে কোথায় মারা গেছে?

খ. মাসি-পিসি হাতে কাটারি-বঁটি তুলে নিয়েছিলেন কেন?

গ. উদ্দীপকে যাদের দুর্বল বলা হয়েছে, তাদের সাথে মাসি-পিসির সাদৃশ্য দেখাও।

ঘ. দুর্বল ক্ষেপে গেলে দুর্বার সাহসী হয়ে ওঠে’- উক্তিটি উদ্দীপক ও মাসি-পিসি’ গল্পের আলােকে বিশ্লেষণ কর।

উপরোক্ত তথ্য অনুযায়ী মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর সম্পর্কিত এই আর্টিকেলে সৃজনশীল প্রশ্নগুলো কেমন হতে পারে তা আপনি দেখে নিয়েছেন। চলুন এবার তবে প্রশ্নের উত্তর গুলোও দেখে নেওয়া যাক।

পাশাপাশি আরও পড়তে পারেনঃ

প্রতিদান কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

তাহারেই পড়ে মনে কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

আঠারাে বছর বয়স কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

নূরলদীনের কথা মনে পড়ে যায় কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ১ এর উত্তর সমূহ

ক উত্তরঃ বুড়াে রহমানের মেয়ে শ্বশুরবাড়িতে মারা গেছে।

খ উত্তরঃ রাত্রি বেলায় কানাই চৌকিদার মাসি-পিসিকে জোর করে কাছারিবাড়ি নিয়ে যেতে চাইলে এর প্রতিবাদে তারা কাটারি-বঁটি হাতে তুলে নিয়েছিল। ‘আহ্বান’ গল্পে দুজন বিধবা নারী চরিত্র হলাে মাসি-পিসি। তারা আহ্লাদি নামের মেয়েটিকে নিয়ে জীবনসংগ্রামে লিপ্ত হয়। সম্পর্কে এরা আহ্লাদির মাসি-পিসি।

অহ্লাদি অত্যাচার-নির্যাতনের ভয়ে স্বামীর ঘরে যেতে চায় না। এই দিকে সমাজের দুষ্টলােকদের লােলুপ দৃষ্টি পড়েছে আহ্লাদির দিকে। কানাই চৌকিদার রাতে এসে মিথ্যে কথা বলে মাসি-পিসিকে কাছারিবাড়িতে যেতে বলে যাতে করে সাধু, বৈদ্য, ওসমানেরা জোর করে আহ্লাদিকে তুলে নিতে পারে। এই সময় মাসি-পিসি প্রতিবাদ করে এবং হাতে কাটারি-বঁটি তুলে নেয়।

সারকথা : কানাই চৌকিদার জোর করে মাসি-পিসিকে কাছারিবাড়ি নিয়ে যেতে চাইলে তারা কাটারি-বঁটি হাতে তুলে নিয়েছিল।

গ) উত্তরঃ ক্ষমতাবানদের দ্বারা শােষিত-নির্যাতিত হওয়া এবং তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার দিক দিয়ে উদ্দীপকে যাদের দুর্বল বলা হয়েছে তাদের সাথে মাসি-পিসির সাদৃশ্য অনেক। সমাজে পিছিয়ে পড়া অসহায় মানুষেরা অনেক সময় লােভী-প্রভাবশালী ও হীন মানসিকতার লােকদের শিকারে পরিণত হয় ।

তাদের সর্বস্ব কেড়ে নিতে উদগ্রীব হয় শােষকরা। উদ্দীপকে বলা হচ্ছে, যারা দুর্বল, যারা সাধারণ তাদের নানা প্রকার প্রতিকূলতা সহ্য করতে হয়। অন্যায়কারী দুর্বলকে খোজে অন্যায় করার লােভে। দুর্বল হয়তাে কখনাে মাথা পেতে নেয়, সহ্য করে । কিন্তু তারাও সময় জেগে ওঠে।

See also  আমার পথ প্রবন্ধের মূলভাব ব্যাখ্যা সহ জেনে নিন

তখন তারা অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিরােধ গড়ে তােলে। উদ্দীপকের এই দুর্বলদের সাথে মাসি-পিসি’ গল্পের মাসি-পিসির অনেক সাদৃশ্য রয়েছে। গল্পে মাঝি-পিসি হলাে অসহায় বিধবা দুজন নারী। সম্পর্কে তারা আহ্লাদি নামের কিশােরী বধূর মাসি-পিসি । আহ্লাদিকে নিয়ে মাসি-পিসির সংগ্রাম।

তারা আহ্লাদিকে নেওয়ার জন্য তার স্বামী জগু কৈলাশকে দিয়ে ভয়ভীতি দেখায়ে। কিন্তু নির্যাতনের ভয়ে আহ্লাদিকে মাসি-পিসি যেতে দেয় না। আবার গ্রামে দুষ্ট কানাই চৌকিদার, গুণ্ড সাধু বৈদ্য, ওসমানদের লােলুপ দৃষ্টি পড়ে আহ্লাদির ওপর। সেখান থেকে আহ্লাদিকে সুরক্ষা দেয় মাসি) পসি। বঁটি কাটারি হাতে ধাওয়া করে কানাইকে। এসব দিক থেকে উদ্দীপকের দুর্বলদের সাথে মাসি-পিসির সাদৃশ্য রয়েছে।

সারকথা : উদ্দীপকে বলা হয়েছে যারা সাধারণ ও দুর্বল তাদের নানা প্রতিকূলতা সহ্য করতে হয়। কিন্তু একসময় তারা জেগে ওঠে। মাসি পিসি’ গল্পেও মাসি-পিসিকে আপাত দুর্বল ও অসহায় মনে হলেও অস্তিত্ব রক্ষায় তারাও প্রতিবাদী হয়ে ওঠে। উভয়ের সাদৃশ্য এখানেই।

হুবুহু সৃজনশীল প্রশ্ন খবুই কম কমন পড়তে দেখা যায় । তাই এই পোষ্ট মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর এর পাশাপাশি মূল বই থেকে এ সম্পর্কিত আরও বিষয়বলী গুলো ও ধারণা রাখুন। এতে করে যেভাবেই প্রশ্ন আসুক না কেনো আপনি যাতে উত্তর করতে পারেন। চলুন বাকী অংশ পড়ে নেওয়া যাক।

ঘ উত্তরঃ দুর্বল ক্ষেপে গেলে দুর্বার সাহসী হয়ে ওঠে’- উক্তিটি উদ্দীপক ও মাসি-পিসি’ গল্পের ক্ষেত্রে সমানভাবে প্রযােজ্য। • খেটে খাওয়া অসহায় মানুষেরা অনেক সময় শত কষ্ট, অত্যাচার মুখ বুজে সহ্য করে। কিন্তু এক সময় তাদেরও ধৈর্যের বাঁধ ভেঙ্গে যায়। তখন তারা প্রতিবাদমুখর হয়ে ওঠে।

উদ্দীপকে দুর্বল শ্রেণির কথা বলা হয়েছে যারা নানা প্রকার প্রতিকূলতা সহ্য করে । অন্যায়কারীরা দুর্বলদের খোঁজে অন্যায় হাসিল করার লােভে। এই সময় দুর্বল হয়তাে মাথা পেতে নেয়, সহ্য করে । কিন্তু এক সময় এরাও জেগে ওঠে, প্রতিবাদে মুখর হয়। এই সময় যেন তাদের শরীরে অসুরের শক্তি ভর করে।

একইভাবে আমরা মাসি-পিসি’ গল্পের বিধবা নারী মাসি-পিসি এবং আহ্লাদিকে সমাজ-পরিবার ও স্বামীর নানা অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করতে দেখি। কিন্তু এক সময় মাসি-পিসিকে চরম প্রতিবাদী হতেও দেখি যখন বাড়িতে কানাই চৌকিদার তাদের কাছারিবাড়ি যেতে বলে।

কানাই, সাধু বৈদ্য, ওসমান মাসি-পসিকে বাড়ি । থেকে বের করে আহ্লাদিকে তুলে নিতে চায়। তখন মাসি-পিসি কাটারি, বঁটি হাতে প্রতিবাদে গর্জে ওঠে। উদ্দীপকে দুর্বলদের প্রতি শােষণ-নির্যাতন এবং এর বিরুদ্ধে তাদের সর্বাত্মক প্রতিরােধের কথা বলা হয়েছে।

মাসি-পিসি’ গল্পে এই দিকটি মাসি-পিসির সামাজিক অবস্থান, তাদের জীবনসংগ্রাম এবং অসহায় আহ্লাদিকে বিরূপ সমাজ তথা পৃথিবীর হাত থেকে রক্ষা করতে তাদের সাহসিকতা ও কর্মকাণ্ডের মাঝে ফুটে উঠেছে। সুতরাং বলা যায়, “দুর্বল ক্ষেপে গেলে দুর্বার সাহসী হয়ে ওঠে।”- উক্তিটি উদ্দীপক ও গল্পের আলােকে যথার্থ ।

See also  বায়ান্নর দিনগুলো রচনার মূলভাব ব্যাখ্যা সহ জেনে নিন

সারকথা : উদ্দীপকে বলা হয়েছে সমাজের দুর্বল লােকেরা প্রতিবাদ করতে পারে না বলে শােষিত হয়। কিন্তু একসময় তারা প্রতিবাদী হয়ে ওঠে। মাসি-পিসি’ গল্পেও মাসিপিসিকে দেখা যায় শেষ পর্যন্ত আহ্লাদিকে রক্ষা করতে তারা হয়ে ওঠে প্রতিবাদী ও সাহসী।

প্রিয় পাঠক আপনি ইতিমধ্যে আমাদের সাইটের মাধ্যমে মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর  ১টি পূর্ণাঙ্গ সম্পন্ন করেছেন। চলুন এ সম্পর্কিত আরও একটি দেখে নেওয়া যাক।

মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ২

রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, ঢাকা মা বহু আগেই মৃত। বাবা থেকেও নেই । অসহায় রাবেয়া বেড়ে ওঠে দূরসম্পর্কের এক চাচির আশ্রয়ে। চাচি গরিব কিন্তু যথেষ্ট আন্তরিক। নিজের মেয়ের মতাে রাবেয়াকে আগলে রেখেছেন। রাবেয়াকে ভালাে রাখার জন্য মাঝে মাঝে তিনি অন্যের বাড়িতে কাজও করেন। কৃতজ্ঞতায় রাবেয়ার চোখে জল নেমে আসে।

ক. বাহকের মাথায় খড় চাপাতে ব্যস্ত কে?

খ. তাদের দুজনেরই এখন আহ্লাদি আছে’– কেন বলা হয়েছে? ব্যাখ্যা কর।

গ. উদ্দীপকে ‘মাসি-পিসি’ গল্পের কোন দিকটি ফুটে উঠেছে? আলােচনা কর।

ঘ. ‘মানবিকতা ও দায়িত্বশীলতা মানুষকে মহান করে তােলে’- উদ্দীপক ও ‘মাসি-পিসি’ গল্পের আলােকে বিশ্লেষণ কর।

পাঠক সাহেব আপনি ইতিমধ্যে উপরোক্ত তথ্য অনুযায়ী মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর ২০২২ সম্পর্কিত আর্টিকেলে ২য় তম সৃজনশীল প্রশ্নগুলোর নমনুা কেমন হতে পারে তা দেখে নিয়েছেন। চলুন এবার তবে প্রশ্নের উত্তর গুলোও দেখে নেওয়া যাক।

পাশাপাশি আরও পড়তে পারেনঃ

প্রতিদান কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

তাহারেই পড়ে মনে কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

আঠারাে বছর বয়স কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

নূরলদীনের কথা মনে পড়ে যায় কবিতার সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন নম্বর ২ এর উত্তর সমূহ

ক উত্তরঃ বাহকের মাথায় খড় চাপাতে ব্যস্ত বুড়াে রহমান।

খ উত্তরঃ তাদের দুজনেরই এখন আহ্লাদি আছে’- এ বাক্যটিতে আহ্লাদির প্রতি নিঃসন্তান মাসি-পিসির অপত্যস্নেহ এবং তাকে অবলম্বন করে জীবনযুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ও প্রেরণা প্রকাশ পেয়েছে ।

মাসি-পিসি মহামারী ও দুর্ভিক্ষের বিরুদ্ধে লড়াই করে নিজেদের এবং আহ্লাদিকে টিকিয়ে রেখেছে। নিজেদের মধ্যের সব বিরােধ মিটে গেছে বেঁচে থাকার সংগ্রামে নামার পর থেকে। দুজনে এখন এক প্রাণ, এক মন । এই মিল আরও জমজমাট হয় আহ্লাদির ভার ঘাড়ে পড়ায়।

নিজেদের বেঁচে থাকা শুধু নয়, তাদের দুজনেরই এখন আহ্লাদি আছে। এই কথার মধ্যে আহ্লাদির প্রতি তাদের দায়িত্ববােধ, ভালােবাসা এবং বেঁচে থাকার লড়াইয়ের প্রেরণা প্রকাশ পেয়েছে। 

সারকথা : প্রশ্নোক্ত বাক্যে আহ্লাদির প্রতি নিঃসন্তান মাসি-পিসির অপত্য স্নেহ ও তাকে অবলম্বন করে বেঁচে থাকার প্রেরণা প্রকাশ পেয়েছে।

গ উত্তরঃ ‘মাসি-পিসি’ গল্পের এক অনাথ ও অসহায় মেয়েকে আশ্রয় দান এবং আগলে রাখার দিকটি উদ্দীপকে ফুটে উঠেছে। কিছু কিছু মানুষের মানবিক আবেদন এতটাই বেশি থাকে যে, তারা অপরের জন্য জীবনের সব সুখ বিসর্জন দিতে প্রস্তুত থাকে । অন্যের মঙ্গলের জন্য তারা নিজেদের সর্বস্ব বিলিয়ে দিতে পারে।

See also  অপরিচিতা গল্পের নামকরণের সার্থকতা কি তা জেনে নিন

এসব মানুষের জন্যই পৃথিবীটা সুন্দর মনে হয়। উদ্দীপকে অসহায় রাবেয়াকে তার এক দূরসম্পর্কের চাচি আশ্রয় দেন। তিনি গরিব হলেও এতিম রাবেয়ার দুরবস্থার সময় তার পাশে দাঁড়িয়েছেন। তাকে আগলে রেখেছেন। এই দিকটি মাসি-পিসি’ গল্পেও প্রকাশিত হয়েছে।

স্বামীর নির্মম নির্যাতনের। শিকার পিতৃ-মাতৃহীন আহ্লাদি বিধবা মাসি-পিসির কাছে আশ্রয় নেয়। মাসি-পিসি তাদের অস্তিত্ব রক্ষার পাশাপাশি বিরূপ বিশ্ব থেকে আহ্লাদিকে রক্ষার জন্য সংগ্রাম করে । অত্যাচারী স্বামী, লালসা-উন্মও জোতদার এবং গুন্ডা-বদমাশদের আক্রমণ থেকে। আহ্লাদিকে নিরাপদে রাখতে তারা বদ্ধপরিকর। গল্পের এই দিকটিই উদ্দীপকে ফুটে উঠেছে।

সারকথা : উদ্দীপকের রাবেয়াকে আশ্রয় দেন তার দূর সম্পর্কের এক চাচি। অন্যদিকে মাসি-পিসি’ গল্পে আহ্লাদিকে আশ্রয় দেয় নিঃসন্তান মাসি-পিসি। গল্পের এই দিকটিই উদ্দীপকে ফুটে উঠেছে।

আপনি এই পোষ্টে মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর  নিয়ে পড়তেছেন। এটি পূর্ণাঙ্গ পড়া শেষে আপনি এ সম্পর্কিত আরও পাঠ্য আমাদের সাইটে খুঁজে পাবেন। অথবা সার্চ বক্সে অনুসন্ধান করে ও আপনাদের সিলেবাস অবলম্বনে পাঠ্য আর্টিকেল খুঁজে পেতে পারেন। চলুন বাকী অংশ পড়ে নেওয়া যাক।

ঘ উত্তরঃ ‘মানবিকতা ও দায়িত্বশীলতা মানুষকে মহান করে তালে’– উদ্দীপক ও ‘মাসি-পিসি’ গল্পের ক্ষেত্রে উক্তিটি গভীর তাৎপর্য বহন করে।

মানুষের মহৎ গুণাবলির মধ্যে অন্যতম শ্রেষ্ঠ হলাে দায়িত্বশীলতা ও অন্যের বিপদে পাশে দাঁড়ানাের মানসিকতা সমাজে। মিলেমিশে বসবাস করতে হলে, সমাজকে মানবিক হিসেবে গড়ে তুলতে হলে প্রত্যেকের মধ্যে এই গুণটি থাকা বাঞ্ছনীয়। উদ্দীপকে একজন দায়িত্বশীল নারীর পরিচয় পাওয়া যায়।

রাবেয়া নামের মেয়েটি যখন বাবা-মাকে হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়ে তখন তাকে আশ্রয় দেন তার দূরসম্পর্কের এক চাচি। তিনি গরিব হলেও গভীর আন্তরিকতার সঙ্গে রাবেয়াকে আগলে রাখেন । এই দিকটি ‘মাসি-পিসি’ গল্পেও চমৎকারভাবে প্রকাশিত হয়েছে।

আহ্লাদি নামের তরুণীর বিধবা মাসি-পিসি আহ্লাদির জন্য যে দায়িত্বশীলতা ও মানবিকতার পরিচয় দিয়েছে তা অনন্য। ‘মাসি-পিসি’ গল্পে স্বামীর নির্মম নির্যাতনের শিকার পিতৃ-মাতৃহীন আহ্লাদিকে তার বিধবা মাসি-পিসি আশ্রয় দেয়। তারা তাদের অস্তিত্ব রক্ষার পাশাপাশি বিরূপ বিশ্ব থেকে আহ্লাদিকে রক্ষা করতে রীতিমতাে সংগ্রাম চালিয়ে যায়।

অত্যাচারী স্বামী, লালসা-উন্মত্ত জমিদার, গুন্ডা-বদমাশদের আক্রমণ থেকে আহ্লাদিকে নিরাপদে রাখার ক্ষেত্রে অসহায় দুই বিধবার দায়িত্বশীল ও মানবিক জীবনযুদ্ধ খুবই প্রশংসনীয় । উদ্দীপকের রাবেয়ার চাচিও এ ধরনের দায়িত্বশীলতা ও মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন। এসব বিচারে বলা যায়, প্রশ্নোক্ত মন্তব্যটি উভয় ক্ষেত্রেই তাৎপর্য বহন করে।

সারকথা : ‘মাসি-পিসি’ গল্পে মাসি-পিসি আহ্লাদিকে আশ্রয় দিয়ে বিরুদ্ধ পরিস্থিতি থেকে আগলে রেখেছেন। উদ্দীপকের চাচিও রাবেয়াকে ম আশ্রয় দিয়েছেন। উভয় ক্ষেত্রেই দায়িত্বশীলতা ও মানবিকতার পরিচয় পাওয়া যায় ।

প্রিয় পাঠক আশাকরি আপনার কাঙ্খিত তথ্য মাসি পিসি গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর আমাদের সাইটের মাধ্যমে সহজেই বুঝে নিতে পেরেছেন।

গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর পেতে এখানে চাপুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button