প্রযুক্তি

মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় ২০২২

আপনার ফোনটি যদি এক বছরের বেশি সময় ব্যবহার করে থাকেন তবে ব্যাটারি সম্ভবত আগের মত আর নেই। এক গবেষণা থেকে জানা গেছে, লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি সময়ের সাথে সাথে একটা সময় পর নষ্ট হয়ে যায়। আজকের পোষ্টে আমাদের আলোচনার বিষয় হলো মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় ২০২২ আপডেট অনুযায়ী। চলুন শুরু করা যাক।

মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায়

আপনি চাইলে নতুন ফোন কিনে এই সমস্যার সমাধান পেতে পারেন। তবে আপনি যদি আপনার টাকা সঞ্চয় করতে চান, তবে আমাদের দেওয়ার টিপসগুলো অনুসরণ করতে পারেন। আজকে এই আর্টিকেলে মূলত মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় নিয়ে আলোচনা করা হবে। তো চলুন জেনে নেয়া যাক :

ব্যাটারি সেভার মোড চালু করা

এটা একটা পরিষ্কার বিষয় যে, অধিকাংশ মোবাইল ফোন ইউজারকারী তাদের মোবাইল ফোনের চার্জ ফুরিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত মোবাইল ফোনের ব্যাটারি সেভার মোড চালু করে না।

অ্যাপল কোম্পানির মোবাইল ফোনে চার্জ যখন ২০ শতাংশের নিচে আসে তখন অটোমেটিকভাবে ‘লো পাওয়ার মোড’ চালু হয়। অধিকাংশ মোবাইল কোম্পানি এ ধরনের ফিচারসমূহ অফার করে থাকে। আপনি চাইলে এ ধরনের ফিচার ব্যবহার করে মোবাইল ফোনের চার্জ কিছুটা সঞ্চয় করতে পারবেন।

See also  মোবাইল ফোন ব্যবহারের অপকারিতা সমূহ সম্পর্কে

সুন্দরভাবে চার্জ দেওয়া

যখন আপনি ফোনটি চার্জ দিবেন তখন কিছু সর্তকতা অবলম্বন করা উচিত। এতে করে আপনার প্রয়োজনের চেয়ে বেশি ব্যাটারি নষ্ট হবে না। আপনার যখন জরুরী মুহূর্তে মোবাইল ফোন চার্জ করার দরকার হবে তখন ফাস্ট চার্জার ব্যবহার করিবেন। যদিও এই ফিচারটি আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারি দ্রুত নষ্ট করে দিতে পারে।

যদি আপনার হাতে পর্যাপ্ত সময় থাকে তাহলে নরমাল পুরনো চার্জার ব্যবহার করবেন। আরেকটি বিষয় আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে, সারারাত ধরে কখনো ফোন চার্জ করবেন না। এতে করে মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ঘন্টার পর ঘন্টা চার্জ নেয়। যা মোবাইল ফোনের ব্যাটারির দীর্ঘায়ু কমিয়ে আনে।

অপ্রয়োজনে ব্লুটুথ ও ওয়াইফাই বন্ধ রাখা

আপনি যদি অপ্রয়োজনে মোবাইল ফোনের ব্লুটুথ ও ওয়াইফাই চালু রাখেন, তবে এটির নতুন কোন সংযোগ খোঁজার চেষ্টা করে। যাতে মোবাইল ফোনের ব্যাটারির অনেকটা ক্ষয় হয়। আপনি যখন বাড়ির বাইরে থাকবেন তখন মোবাইল ফোনের ওয়াইফাই বন্ধ রাখার চেষ্টা করবেন।

ব্লুটুথ এর ক্ষেত্রেও একই কাজ করতে হবে। আপনি যখন আপনার ডিভাইসটি ওয়ারলেস হেডফোন বা স্পিকারের সাথে সংযুক্ত করবেন না তখন এসব বন্ধ রাখাই উত্তম। এজন্য আপনার অতিরিক্ত ব্যাটারি ক্ষয় হবে না। ব্যাটারি লাইফ আরো দীর্ঘস্থায়ী হবে।

বারবার অল্প করে মোবাইল ফোন চার্জ দেওয়া

আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারি একসঙ্গে সম্পূর্ণ চার্জ না করে, অল্প অল্প করে ফুল চার্জ করুন। লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারিগুলো এভাবে চার্জ করলে চার্জ অনেক বেশি থাকে।

এভাবে চার্জ করার ফলে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিগুলো অনেক বেশি দিন লাস্টিং করে। তাই মোবাইল ফোন সারারাত ধরে চার্জ না করাই উত্তম। আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারির স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চাইলে ওভার চার্জিং এড়িয়ে চলতে হবে।

See also  মোবাইলের ব্যাটারি ফুলে যায় কেন জেনে নিন

সর্বদা অরিজিনাল চার্জার ব্যবহার করা

মোবাইল ফোন চার্জ দেওয়ার সময় সবসময় খেয়াল রাখতে হবে, ফোনের চার্জার যেন অরিজিনাল হয়। প্রতিটি ভিন্ন মডেলের ফোনের চার্জ নেওয়ার সিস্টেম ভিন্ন।

প্রতিটি ফোন মডেল একটি নির্দিষ্ট ভোল্টেজ আর ফ্রিকোয়েন্সি মেনে চার্জ হয়ে থাকে। তাই ভিন্ন মডেল ফোনের চার্জার ব্যবহার না করাই উত্তম। এতে সঠিকভাবে মোবাইল ফোনটি চার্জ করা পসিবল হয় না।

ডার্ক ওয়াল পেপারের ব্যবহার করা

একটি গবেষণায় পাওয়া গেছে যে, ডার্ক ওয়ালপেপার ব্যবহার করলে মোবাইল ফোনের ব্যাটারি দীর্ঘ সময় ব্যাকআপ দিতে পারে। তাই আপনার মোবাইল ফোনটি যেরকম হোক না কেন সব সময় চেষ্টা করবেন ডার্ক ওয়ালপেপার ব্যবহার করার।

মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ডিসপ্লে সবচেয়ে বেশি খরচ করে থাকে। এজন্য আপনি যদি কোনো ডার্ক থিম বা ওয়ালপেপার ব্যবহার করেন তবে মোবাইলের ব্যাটারির অনেক বেশি সাশ্রয় হবে। যেটা আপনাকে দীর্ঘ সময় মোবাইল ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম।

কোন অ্যাপগুলো বেশি ব্যাটারি নষ্ট করে তা BATTERY USAGE এ দেখুন

আপনি যদি এখনও আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারি সেভ করতে না পারেন, তবে এখনই আপনাকে চেক করতে হবে কোন অ্যাপগুলো সবচেয়ে বেশি ব্যাটারি ক্ষয় করছে। এরপর সে গুলোকে শনাক্ত করে এখনই ডিলিট করে ফেলুন।

আপনাকে মোবাইল ফোনের সেটিং এ যেতে হবে । এরপর ব্যাটারি অপশনে ক্লিক করতে হবে। সেখানে দেখতে পাবেন BATTERY USAGE নামে একটা অপশন। এখান থেকে অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যাটারি ক্ষয়কারী অ্যাপসগুলো এখনই ডিলিট করুন।

See also  কম্পিউটারকে ভাইরাস মুক্ত রাখার উপায়

গেম খেলার সময় ফোন চার্জ না দেওয়া

আপনি অফলাইন গেম বা অনলাইন গেম খেলুন না কেন সর্বদা খেয়াল রাখবেন মোবাইল ফোন চার্জে দিয়ে যেন গেম খেলা নয়। মোবাইল ফোন চার্জে দিয়ে গেম খেললে মোবাইল ফোনের চার্জ সঠিক ভাবে হয় না। এতে মোবাইল ফোন প্রচুর পরিমাণে গরম হয়ে থাকে।

মোবাইল ফোনের চার্জিং সিস্টেমে ব্যাঘাত ঘটে। যা আপনার মোবাইল ফোনের জন্য বড় ধরনের হুমকির কারন হবে। এজন্য সর্বদায় অনলাইন গেম স্ট্রিমিং করার সময় কখনো ভুলেও মোবাইল ফোন চার্জ দেবে না।

সর্বদা লোকেশন বন্ধ রাখা

লোকেশন সেবা বা জিপিএস সিস্টেম আপনার ফোনের ব্যাটারি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। আপনার ফোনের অপশন থেকে মোবাইল ফোনের লোকেশনটি বন্ধ করার কোনো বিকল্প নেই। ওয়াইফাই- ব্লুটুথ এর মত লোকেশন আপনার ফোনের খুব বেশি চার্জ খরচ করে থাকে।

আপনার ফোনের ব্যাটারি লাইফ সেভ করতে চাইলে এই সব অপশন সব সময় বন্ধ রাখতে হবে। আপনি যদি সবসময় 80% চার্জ করেন তবে এটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে। এমন চার্জ করলে আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারি চার্জ প্যাটার্ন কখনো বিরক্ত হবে না। সুতরাং আপনার উচিত হবে মোবাইল ফোনের ব্লুটুথ- -ওয়াইফাই ও লোকেশন বন্ধ রাখা।

আমাদের কথা

আজকে আমাদের আলোচনার বিষয় ছিল মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার কার্যকরী উপায় সম্পর্কে। আশা করছি মোবাইল ফোনের ভালো রাখার উপায়গুলো অনুসরণ করবেন। তাহলে অবশ্যই আপনার ফোনের ব্যাটারির স্বাস্থ্য আরো বেশি ভালো থাকবে। আপনার কোন সমস্যা থাকলে আমাদের জানাতে ভুলবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button