ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার

আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য কি বিস্তারিত জানুন

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং কে একই বিষয় মনে করে থাকে। যদিও বা ভাষাগত দিক থেকে আমাদের কাছে এই দুটি একই রকম মনে হয়। কিন্তু বাস্তব ক্ষেত্রে আউটসোর্সিং হলো আলাদা রকমের একটি প্ল্যাটফর্ম। এবং ফ্রিল্যান্সিং হলো আলাদা রকমের একটি প্ল্যাটফর্ম। যার কারণে আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। 

কিন্তু বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষ এই পার্থক্য সম্পর্কে সঠিক তথ্য না জানার কারণে। তারা সবাই আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং-কে একই বিষয় মনে করে থাকে।

আর এই আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। সে বিষয় টি বুঝিয়ে দেয়ার জন্যই আজকের এই আর্টিকেল টি লেখা হয়েছে। যদিও বা আমি আমার ওয়েবসাইটে এর পূর্বে অনলাইন ইনকাম রিলেটেড বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আর্টিকেল পাবলিশ করেছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য নিয়ে কোনো ধরনের আর্টিকেল পাবলিশ করা হয়নি। তাই আজকের আর্টিকেলে আমি চেষ্টা করব এই দুটো প্ল্যাটফর্ম এর মধ্যে থাকা পার্থক্য কে খুব সুন্দর ভাবে তুলে ধরার।

আর আপনি যদি অনলাইনে ইনকাম সম্পর্কিত তথ্য জানার আগ্রহ থাকে। এবং আপনি যদি জানতে চান যে, Difference between Outsourcing & Freelancing. তাহলে চেষ্টা করবেন আজকের পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়ার। 

আশা করি আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনার মধ্যে থাকা এই বিষয়টি সম্পর্কে একেবারেই পরিষ্কার ধারণা চলে আসবে। তাহলে আর দেরি না করে চলুন সরাসরি মূল আলোচনায় ফিরে যাওয়া যাক।

Table of Contents

ফ্রিল্যান্সিং কি? What is Freelancing?

ফ্রিল্যান্সিং এর অর্থ হল স্বতন্ত্র ভাবে কাজ করা। কেননা ফ্রিল্যান্সিং শব্দটির উৎপত্তি হয়েছে দুটো শব্দের সমন্বয়ে। প্রথম শব্দটি হল Free, যার অর্থ হলো স্বতন্ত্র। এবং দ্বিতীয় শব্দটি হল Lance. যার অর্থ হলো, যন্ত্রপাতি। আর এই দুটো অর্থ যখন এক সঙ্গে মিলিত হবে। তখন ফ্রিল্যান্সিং এর পূর্ণ অর্থ দাঁড়াবে, স্বতন্ত্রভাবে কাজ করা। 

মূলত আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করেন। তাহলে আপনি আপনার নিজের স্বাধীনতা মত অনলাইনে কাজ করতে পারবেন। এর পাশাপাশি আপনি সেই কাজের বিনিময় ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্ম থেকে অনলাইন এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। মূলত এই পদ্ধতিকে বলা হয়ে থাকে ফ্রিল্যান্সিং।

আউটসোর্সিং কি? What is Outsourcing?

আউটসোর্সিং এর অর্থ হল বাইরের কোন উৎস থেকে পাওয়া। কারণ আউট সোর্সিং মূলত দুটো শব্দের সমন্বয়ে গঠিত। যেখানে Out শব্দটির অর্থ হলো বাইরে। এবং Source শব্দটির অর্থ হলো উৎস। অর্থাৎ আপনি ইন্টারনেট প্লাটফর্মে বাইরের উৎস থেকে যখন কোনো কিছু পাবেন। তখন তাকে বলা হবে আউটসোর্সিং।

অর্থাৎ যখন আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলো তে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সার দের কে দিয়ে কোন অনলাইন জব করিয়ে নিবেন। এবং জব করার জন্য ফ্রিল্যান্সার দের কে হায়ার করবেন। তখন আপনি সেখান থেকে কিছু পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন। মূলত এই টাকা আয় করার প্রক্রিয়া কে বলা হয়ে থাকে, বাইরের উৎস থেকে পাওয়া অর্থাৎ আউটসোর্সিং।

সংজ্ঞার দিক থেকে আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য

ফ্রিল্যান্সিং হলো এমন একটি প্লাটফর্ম, যেখানে আপনি একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে বিভিন্ন ধরনের ক্লায়েন্ট এর জব করতে পারবেন। এবং যখন আপনি সেই জব গুলো সঠিকভাবে করবেন। তখন আপনার পারিশ্রমিক হিসেবে উক্ত কাজের জন্য নির্ধারিত টাকা আপনাকে প্রদান করবে। আর আপনি এই ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) প্লাটফর্ম থেকে এভাবেই ইনকাম করতে পারবেন।

See also  ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কি? ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায়

কিন্তু আপনি যদি আউটসোর্সিং এর সাথে যুক্ত থাকেন। তাহলে আপনাকে কোন প্রকার কাজ করতে হবে না। বরং ফ্রিল্যান্সাররা যেসব ক্লায়েন্টদের কাছে কাজ নেয়। আপনি হলেন সেই ধরনের একজন ক্লায়েন্ট। অর্থাৎ আপনি এই ফ্রিল্যান্সার দের কাজ প্রদান করবেন। এবং এই কাজ প্রদান করার বিনিময়ে আপনি আর আউটসোর্সিং (Outsourcing) নামক বাইরের উৎস থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

কাজের দিক থেকে আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য

দেখুন আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মে একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করেন। তাহলে আপনি ঠিক সেই সময় থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। যখন আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস এর কোন একটি কাজ সম্পন্ন করার পর উক্ত কাজটি জমা করবেন। 

অপরদিকে আপনি যদি আউটসোর্সিং করেন। তাহলে আপনি একজন মধ্যস্থকারী হিসেবে কাজ করবেন। সে ক্ষেত্রে আপনি মূল কোম্পানির সাথে ফ্রিল্যান্সারদের এক প্রকার যোগাযোগ স্থাপন করবেন। এবং আপনি নির্দিষ্ট কোন একটি কোম্পানির যত গুলো টাস্ক ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমে সম্পন্ন করতে পারবেন। এখান থেকে আপনি বেশ ভালো এমাউন্টের টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

আয় করার দিক থেকে ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং এর মধ্যে পার্থক্য

আপনি আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে যে গুরুত্বপূর্ণ পার্থক্যটি লক্ষ্য করতে পারবেন। সেটি হলো একজন ফ্রিল্যান্সার এর নির্দিষ্ট কোন ইনকাম হয় না। অর্থাৎ আপনি একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে যদি চলতি মাসে 1 লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারেন। তাহলে আপনি এই বিষয়টি সিওর থাকতে পারবেন না যে, পরবর্তী মাসে আপনার এক লাখ টাকা ইনকাম হবে। বরং পরের মাসে আপনার সেরকম ইনকাম নাও আসতে পারে।

ঠিক এখন ভাবে আপনি আউটসোর্সিং এর ক্ষেত্রেও ভিন্নতা লক্ষ্য করতে পারবেন। কেননা যখন আপনি আউটসোর্সিং এর সাথে যুক্ত থাকবেন। তখন আপনি সব সময় আপনার মনের মত কাজ খুঁজে পাবেন না। তাছাড়া যখন আপনি আউটসোর্সিং করবেন, তখন আপনার কোন একটি কাজ শেষ হতে স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশি সময়ের প্রয়োজন হবে।

See also  ফ্রিল্যান্সিংয়ে কোন কোন কাজের ভালো চাহিদা আছে জেনে নিন

ব্যক্তিগত তথ্যের ভিত্তিতে পার্থক্য (Freelancing Vs Outsourcing)

যখন আপনি ফ্রিল্যান্সিং করবেন, তখন আপনি স্বাধীন ভাবে কাজ করতে পারবেন। অর্থাৎ সেখানে আপনি নিজেই আপনার বস। আর সে কারণেই আপনি যখন চাইবেন, তখন এই ফ্রিল্যান্সিং রিলেটেড জব গুলো করতে পারবেন। আর আপনি এই ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলো তে যত বেশি জব করতে পারবেন। আপনার আয় এর পরিমাণ ঠিক ততো বেশি বৃদ্ধি পাবে। 

অপরদিকে আপনি যদি আউটসোর্সিং করেন। তাহলে কিন্তু আপনার স্বাধীনতায় একটু হলেও ব্যাঘাত ঘটবে। কেননা সেখানে আপনি একটি কোম্পানির আন্ডারে কাজ করবেন। এবং আপনাকে বিভিন্ন ধরনের ফ্রিল্যান্সারদের হ্যান্ডেল করতে হবে। 

মূলত কোন কোম্পানি থেকে আসা কোন নির্দিষ্ট একটি প্রজেক্টে কাজ আপনাকে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সারদের দিয়ে পরিচালনা করতে হবে। আর যখন সেই প্রজেক্ট এর কাজ সম্পন্ন হবে, ঠিক তখনি আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। অন্যথায় আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করেন। তাহলে আপনি নির্দিষ্ট একটি কাজ শেষ করে জমা দেয়ার পরেই টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

আমাদের শেষকথা

যখন কেউ নতুন একজন ব্যক্তি হিসেবে অনলাইন ইনকাম প্লাটফর্মে আসে। তখন তাদের মধ্যে একটা ভুল ধারণা চলে আসে। আর সেই ধারণাটি হলো, এই নতুন মানুষ গুলো মনে করে যে, আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে যেহেতু টাকা আয় করা যায়। সেহেতু এই দুটো বিষয়ে একরকম। 

তবে এই আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য সম্পর্কে বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি লেখা হয়েছে। যদি আপনি আজকের এই পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন। তাহলে আমার বিশ্বাস যে, এতক্ষণে আপনি আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য সম্পর্ক পরিষ্কার ধারণা পেয়ে গেছেন।

Mr Roy

Hello Friend, আমার নাম, নিরন্জন রায়। আমি একজন বাংলা কন্টেন্ট রাইটার। দীর্ঘদিন ধরে এই পেশায় যুক্ত আছি। আমি চেস্টা করি নিজের জানা বিষয় গুলো কে অন্যের সাথে শেয়ার করার। আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন.... https://www.facebook.com/fx.nironjonbd

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button