ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার

ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কি? ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায়

অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়া সাইটগুলোর মধ্যে অন্যতম সেরা ও জনপ্রিয় হলো ইনস্টাগ্রাম। ইনস্টাগ্রাম হল মেটা কোম্পানির একটা পণ্য। Meta কোম্পানির অনেকগুলো পণ্য রয়েছে । যেমন : ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম।  ইনস্টাগ্রাম কোম্পানির জনক হলেন মার্ক জুকারবার্গ। ফেসবুকের মত ইনস্টাগ্রাম মানুষের নিকট খুব বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। আজকের পূর্ণাঙ্গ আলোচনার বিষয় ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কি? ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত।

বর্তমানে ইনস্টাগ্রাম তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করে প্রচুর পরিমাণে কাস্টমার বৃদ্ধি করা যায়। অনলাইনের সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংগুলোর মধ্যে ইনস্টাগ্রাম কার্যকরী একটা মার্কেটিং পদ্ধতি। কিভাবে ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত আজকে গাইডলাইন দেব।

কাদের জন্য ইনস্টাগ্রম মার্কেটিং?

ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করতে আপনার প্রথম একটা ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে হবে। তারপর আপনার একাউন্টে যত পরিমাণ ফলোয়ার হবে তাদের কাজে লাগিয়ে পণ্য বা সেবার মার্কেটিং করতে হবে। ইনস্টাগ্রম মার্কেটিং করে সফলতা লাভ করতে চাইলে আপনার একাউন্টে পর্যাপ্ত পরিমাণ ফলোয়ার সংখ্যা থাকা বাধ্যতামূলক।

আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যা যত বেশি হবে ঠিক তত বেশি অ্যাডভার্টাইজমেন্ট করে পণ্যের প্রচার চালিয়ে পণ্য বিক্রি করা সম্ভব হয়।  পৃথিবীর বড় বড় সেলিব্রেটিরা ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন করছেন। কারণ তাদের ফলোয়ার সংখ্যা মিলিয়ন মিলিয়ন হয়ে থাকে। তো আজকে আমরা জানবো ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কী ও কিভাবে ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করবেন ।

ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কী?

ইনস্টাগ্রামে ফেসবুকের মতোই ছবি , লেখা ও ভিডিও ইত্যাদি শেয়ার করা হয়। প্রতিনিয়ত ভালো ভালো ইমেজ, ফটো ও ভিডিও আপলোড করে আপনার অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

নিয়মিত কনটেন্ট পাবলিশ করার মাধ্যমে আপনার একাউন্ট একটা সময়ে জনপ্রিয় হয়ে যাবে। ধীরে ধীরে আপনার ফলোয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। এজন্য আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর সবকিছু প্রফেশনাল করে নিতে হবে।  আপনার কনটেন্ট অবশ্যই প্রফেশনাল হতে হবে। এভাবে আপনি কাজ করতে পারলে আপনি ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করে আয় করতে পারবেন।

See also  অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে 2022

কিভাবে ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করবেন?

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট দিয়ে মার্কেটিং করতে চাইলে আপনার অবশ্যই একটা ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে হবে। এজন্য আপনাকে ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ অথবা ওয়েবসাইট ব্যবহার করে একটা ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে হবে।

তারপর সুন্দর একটা ইমেজ সেট আপ করে নিতে হবে। আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর প্রফেশনাল একটা বায়ো লিখতে হবে। আপনার সম্পর্কে সুন্দর একটা প্রফেশনাল ডেসক্রিপশন এড করে দিতে হবে। এরপর নিজের দক্ষতা দিয়ে সুন্দর সুন্দর পিকচার তুলে বা তৈরি করে প্রতিনিয়ত ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট আপলোড দিতে হবে।

ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় করতে চাইলে আপনার ফলোয়ার সংখ্যা বাড়াতে হয়। আপনার ফলোয়ার সংখ্যা যত বেশি হবে ততবেশি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট থেকে মার্কেটিং করার মাধ্যমে আয় করতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম

একটা প্রফেশনাল ইনস্টাগ্রামে একাউন্ট খোলার জন্য নিচের টিপসগুলো আপনাকে অনুসরণ করে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে

বিষয় নির্বাচন করা

একটা প্রফেশনাল মার্কেটিং অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পূর্বে আপনাকে একটা সুনির্দিষ্ট বিষয় নির্বাচন করে নিতে হবে। আপনাকে সম্ভাব্য মার্কেট গবেষণা করে একটা বিষয় নির্বাচন করতে হবে যেটার চাহিদা বিদ্যমান।

আপনারা যে বিষয়ে অভিজ্ঞতা বা জ্ঞান বা আগ্রহ রয়েছে সেই বিষয় নির্বাচন করে কাজ করার প্রথম চেষ্টা করবেন। এতে সফলতা লাভ করার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে।  আপনি যে বিষয় আকর্ষণ অনুভব করেন সে বিষয়ে একটা অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিন। নিয়মিত আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর অডিয়েন্সের কাছে ইমেজ টিপস এন্ড ট্রিকস ও সে বিষয়ে ভিডিও আপলোড করতে হবে।

এমন কনটেন্ট নিয়মিত আপলোড করতে হবে যেন ফলোয়ার সেটার প্রতি আকর্ষণ অনুভব করে। এভাবে আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ধীরে ধীরে বড় করতে হবে এবং মার্কেটিং পরিকল্পনা করতে হবে।

সঠিকভাবে বায়ো লেখা

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর ফলোয়ার্স আপনার সম্পর্কে জানার জন্য আপনার বায়ো পড়বে। তাই আপনার অডিয়েন্সের প্রতি আকর্ষণ অনুভব করানোর জন্য প্রফেশনাল ও আকর্ষণীয় বায়ো লিখতে হবে।

See also  ফ্রিল্যান্সিংয়ে কোন কোন কাজের ভালো চাহিদা আছে জেনে নিন

যাতে ফলোয়ার্স সেটি পড়ে আগ্রহী হয়। আপনি চাইলে প্রফেশনাল একটা লোগো ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া আপনাকে হ্যাশ ট্যাগ ব্যবহার করার জানতে হবে। সঠিকভাবে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে জানতে পারলে কাঙ্খিত অডিয়েন্সরা আপনাকে খুব সহজেই খুজে নিবে।

কোয়ালিটিসম্পন্ন পোস্ট করা

ইনস্টাগ্রামে কোন কিছু শেয়ার করার পূর্বে ভালোভাবে কিওয়ার্ড রিসার্চ করে চাহিদা অনুধাবন করে তারপর সেটি আপলোড করতে হবে। আপনাকে ইউজার এনালাইসিস করে নিয়মিত মানসম্মত কনটেন্ট তৈরি করে আপনার অডিয়েন্সের নিকট শেয়ার করে দিতে হবে।

এছাড়া ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করার জন্য নিম্নোক্ত বিষয়ে আপনার দক্ষতা থাকা আবশ্যক। নতুবা খুব সহজে আপনি ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করে সফলতা লাভ করতে পারবেন না।

ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করতে যেসব দক্ষতা আপনার প্রয়োজন হবে :

ফটোগ্রাফি

ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করার জন্য বাধ্যতামূলক হচ্ছে ফটোগ্রাফি শেখা। এ ধরনের মার্কেটিং করতে চাইলে আপনার প্রফেশনাল মানের ফটো তোলার দক্ষতা থাকা প্রয়োজন। আপনার ফটোগ্রাফিক দক্ষতা ফটো আপলোড দেয়ার ক্ষেত্রে কাজে লাগবে।

সৃজনশীলতা

সৃজনশীলতা একটা অসাধারণ গুণ যেটা যে কোন কাজে সফলতার মূলমন্ত্র হিসেবে কাজ করে। একজন সৃজনশীল মানুষ খুব বেশি উদ্ভাবনী ক্ষমতা সম্পন্ন হয়ে থাকে।

তার মাথায় নতুন নতুন ধারণা সারাদিন ঘুরপাক খায়। আপনাকে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ছবি তোলার আইডিয়া মাথায় আনতে হবে এবং সেই দক্ষতা কাজে লাগাতে হবে।

আপনি যত নতুন নতুন স্টাইল করে দক্ষতার সাথে অসাধারণ ছবি তুলতে পারবেন ততবেশি আপনি সফলতা লাভ করবেন।

ছবি ও ভিডিও এডিটিং

ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে প্রতিনিয়ত ছবি ও ভিডিও আপলোড করতে হবে। এজন্য আপনাকে ছবি ও ভিডিও এডিটিং করা বাধ্যতামূলক ভাবে শিখতে হবে।

আপনি ছবি ও ভিডিও এডিট করার ক্ষেত্রে যত বেশি ক্রিয়েটিভ হবেন তত বেশি সফলতা লাভ করবেন। আপনাকে ভিডিও এডিট করার ও ফটো এডিট করার বিভিন্ন টুল ব্যবহার করে দক্ষতার সহিত এডিটিং কার্য সম্পাদন করতে হবে।

See also  ডিজিটাল মার্কেটিং করে কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করা যায়

এজন্য আপনাকে হাই কোয়ালিটির ও হাই রেজুলেশন ইমেজ ও ভিডিও নিয়ে কাজ করতে হবে। তো এখন আমরা জানবো ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ব্যবহার করে মার্কেটিং করে আয় করার উপায়

ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় করার উপায়সমূহ

স্পন্সর থেকে আয়

আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে যদি অনেক বেশি পরিমাণ ফলোয়ার থেকে থাকে তবে আপনি স্পন্সর করে আয় করতে পারবেন। আপনি বিভিন্ন কোম্পানি থেকে স্পন্সর নিয়ে তাদের পণ্য রিভিউ করে আয় করতে পারবেন।

নিজস্ব পণ্য বিক্রি করে আয়

আপনি আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর ফলোয়ার কাজে লাগিয়ে নিজস্ব কোন পণ্য সামগ্রী মার্কেটিং করে অডিয়েন্সের নিকট বিক্রি করতে পারবেন। এজন্য আপনার ফলোয়ার অনেক বেশি থাকতে হবে।

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়

এফিলিয়েট মার্কেটিং হল অন্য কোন কোম্পানির পণ্য বা সেবার লিংক শেয়ার করে সেটা বিক্রয় করা। আপনি জনপ্রিয় অনেক এফিলিয়েট কোম্পানির লিংক আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এ শেয়ার করে আয় করতে পারবেন।

আপনার শেয়ার করার লিঙ্ক থেকে যত বিক্রয় হবে তার উপর একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন পাবেন।

ফটো বিক্রি করে আয়

অনলাইনে এমন অনেক সাইট রয়েছে যারা হাই কোয়ালিটি ফটো কিনে থাকে। আপনার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট এর ফটোগুলো যদি হাই কোয়ালিটি ও প্রফেশনাল হয় তবে তাদের নিকট বিক্রি করতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট বিক্রি করে আয়

এক্ষেত্রে আপনার অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যা অনেক বেশি থাকতে হবে। আপনার অ্যাকাউন্ট যদি অনেক বেশি জনপ্রিয় হয় তবে সেটি বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

অনলাইনে ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট বিক্রি করার অনেক সাইট রয়েছে যেখানে আপনি আপনার একাউন্টটি বিক্রি করতে পারবেন।

আমাদের কথা

আজকের আর্টিকেলের আলোচনার মূল বিষয় ছিল ইনস্টাগ্রম মার্কেটিং নিয়ে । আশা করি, ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কী ? কিভাবে ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং করবেন? ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম ও ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় করার উপায় সম্পর্কে একটু হলেও ধারণা পেয়েছেন।

আপনি যদি মনোযোগ দিয়ে আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত করে থাকেন তবে অবশ্যই কিছু জ্ঞান লাভ করতে পারবেন। তাহলে আমরা সার্থক হবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button