ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে 2022

বর্তমান সময়ে কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা অনলাইন থেকে ইনকাম করা সম্ভব। আর এই অনলাইন ইনকাম টি যদি আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে করতে পারেন তাহলে সেটা মোটেও মন্দ হবে না। বরং আমরা আমাদের বেশিরভাগ মূল্যবান সময়গুলো ঘন্টার পর ঘন্টা মোবাইলে ব্যয় করি। কিন্তুু সেই ব্যয় করা সময় গুলো থেকে আমরা যদি বাড়তি কিছু টাকা আয় করতে পারি তাহলে সেটা আমাদের জন্যই ভালো। চলুন তবে বিশদভাবে আজকের আর্টিকেলের আলোচনার বিষয় অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে 2022 নিয়ে শুরু করা যাক বিস্তারিত। 

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা মূলত ঘন্টার পর ঘন্টা ফেসবুক,ইউটিউব কিংবা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গুলোতে সময় ব্যয় করে থাকি। কিন্তু আমাদের এই মূল্যবান সময়গুলো ব্যয় করার কারণে কোনো প্রকার টাকা আয় করতে পারিনা। তবে অবাক করার মত বিষয় হল আপনি চাইলে অনলাইনে থাকা ছোটখাটো কিছু কাজ করে মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

তবে জানার বিষয় হল যে মোবাইল দিয়ে অনলাইন ইনকাম করার উপায় গুলো কি কি। আর আজকের আর্টিকেলে আমি সেই বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। যদি আপনার হাতে একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থাকে এবং আপনি যদি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে চেষ্টা করবেন আজকের পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার। তাহলে কথা দিচ্ছি আজকের পর থেকে আপনি অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করার সমস্ত খুঁটিনাটি বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন।

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব? 

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করতে গেলে সবার আগে যে প্রশ্ন টি আসে সেটি হল সত্যিই কি বর্তমান সময়ে অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব কিনা। কারণ আমাদের ধারণা মোবাইল হল একটি ছোট্ট ডিভাইস এই ডিভাইস দিয়ে কিভাবে অনলাইনে ইনকাম করা যাবে। তবে যদি আপনার মনে এই প্রশ্নটি জেগে থাকে তাহলে শুনুন….

See also  ইমেইল মার্কেটিং এর গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা

বর্তমান সময়ে আমরা যেসব স্মার্টফোন ব্যবহার করি সেগুলো কিন্তু আগের তুলনায় অনেক বেশি উন্নত হয়েছে। এই মোবাইল ফোন গুলো দিয়ে আপনি এমন সব কাজ করতে পারবেন যেগুলো একটি কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ থেকেও করা যায়। আর সে কারণে বর্তমান সময়ে আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে খুব সহজেই অনলাইন ইনকামের অনেক গুলো কাজ করতে পারবেন

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করার উপায় ২০২২

আজকের দিনে আপনি আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোন দিয়ে অনলাইনে থাকা ভিন্ন ভিন্ন কাজ করতে পারবেন। আর সেই কাজগুলো করার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার মোবাইল Online Income করে নিতে পারবেন।  তবে জানার বিষয় হল যে অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করার উপায় গুলো কি কি। চলুন এবার সেই উপায় গুলো সম্পর্কে ধাপে ধাপে আলোচনা করা যাক।

০১| ইউটিউব থেকে আয়

আপনি একজন ভিডিও কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবে অনলাইনে যদি নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চান। তাহলে আপনার জন্য উপযুক্ত একটি প্লাটফর্ম হবে ইউটিউব। কারণ বর্তমান সময়ে যারা সফল ইউটিউবার তারা প্রতি মাসে এই ইউটিউব প্ল্যাটফর্ম থেকে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করে আসছে। আর সবচেয়ে মজার বিষয় হলো আপনি ইউটিউব প্লাটফর্মে আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে কাজ করতে পারবেন।

কারণ ইউটিউবে আপনাকে তেমন কোন কিছুই করতে হবে না। শুধু আপনাকে একটি চ্যানেল খুলতে হবে এবং সেই চ্যানেলে নির্দিষ্ট কোন টপিকে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করে যেতে হবে। যখন আপনি আপনার চ্যানেলের ভিডিও আপলোড করে আপনার শখের চ্যানেলটিকে জনপ্রিয় করতে পারবেন। ঠিক তখন থেকেই আপনি সেই চ্যানেল থেকে প্রচুর পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

০২| ব্লগিং করে আয় 

যদি আপনার মধ্যে লেখালেখি করার অভ্যাস থাকে, যদি আপনি লিখতে ভালোবাসেন তাহলে আপনার জন্য অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করার অন্যতম একটি মাধ্যম হবে ব্লগিং। কারণ যদি আপনি একজন সফল ব্লগার হতে পারেন তাহলে এই ব্লগিং প্লাটফর্ম থেকেই আপনি লাখ লাখ টাকা অনলাইনে ইনকাম করে নিতে পারবেন।

দেখুন বর্তমানে আপনি যেখানে এই লেখাটি পড়ছেন সেটাও কিন্তু একটা ব্লগ। আর এই ব্লগ টি তৈরি করার মূল উদ্দেশ্যই হলো এখান থেকে কিছু পরিমাণ টাকা আয় করা। ঠিক তেমনি ভাবে আপনিও আপনার নিজস্ব একটি ব্লগ তৈরি করতে পারবেন। এবং সেই ব্লগে আপনার জানা বিষয় গুলোকে লেখার মাধ্যমে শেয়ার করতে পারবেন।

See also  আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে পার্থক্য কি বিস্তারিত জানুন

তবে একটি ব্লগ তৈরি করে সেই ব্লগ থেকে আয় করার জন্য আপনার কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ থাকতেই হবে এরকম কোন বাধ্যবাধকতা নেই। যদি আপনার কাছে একটি স্মার্টফোন থাকে, তাহলে সেই স্মার্টফোনটিই ব্লগিং করার জন্য যথেষ্ট। আর সে কারণেই বর্তমান সময়ে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা মূলত তাদের হাতে থাকা স্মার্টফোন দিয়েই ব্লগিং করে আসছেন।

০৩| সার্ভে জব থেকে আয়

যখন আপনি অনলাইনে ইনকাম মোবাইল দিয়ে করতে চাইবেন। তখন কোনো না কোনো সময় আপনি সার্ভে জব সম্পর্কে জানতে পারবেন। সার্ভে হলো অনলাইনের এমন এক ধরনের কাজ যেখানে বিভিন্ন কোম্পানিতে থেকে আপনাকে তাদের পণ্য সম্পর্কে প্রশ্ন করবে। আর আপনি সেই প্রশ্নগুলোর সঠিক উত্তর দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

সার্ভে নামক এই সেক্টরটিতে যেসব কাজ করা হয় সেই কাজগুলো করার জন্য আপনার হাতে ল্যাপটপ বা কম্পিউটার থাকতে হবে এরকম কোন নিয়ম নেই। আপনি চাইলে এই কাজগুলো আপনার মোবাইল ফোন দিয়েও করতে পারবেন।  

আপনি একটু খোঁজ নিলেই দেখতে পারবেন যে আপনার মত এমন অনেক মানুষ আছেন যারা ঘরে বসে না থেকে তাদের হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়েই সার্ভে জব করে বেশ ভালো পরিমাণ টাকা অনলাইন ইনকাম করে আসছে। আর সময়ের সাথে সাথে আজকের দিনে এমন অনেক ধরনের সার্ভে ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে যেখানে আপনার মত সাধারন মানুষ খুব সহজেই সার্ভে জব গুলো করতে পারবে।

০৪| মাইক্রো জব করে আয়

অনলাইন ইনকাম প্লাটফর্মে থাকা যেসব ছোটখাটো কাজ আছে সেই ছোটখাটো কাজ গুলোকে বলা হয়ে থাকে মাইক্রো-জব। আর এই ধরনের ছোটখাট জব গুলো আপনি খুব সহজেই আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে করতে পারবেন। আপনি যদি ফুলটাইম হিসেবে এই ছোটখাটো জব গুলো করতে পারেন তাহলে আপনি মাসে বেশ ভালো পরিমাণ টাকা অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করতে পারবেন।

সবচেয়ে মজার বিষয় হল এই মাইক্রো জবগুলোতে যেসব কাজ পাওয়া যায় সেগুলো অনেক সহজ হয়ে থাকে। যেমন, ভিডিও দেখা, গেম খেলা, কোন অ্যাপস ইনস্টল করা, অন্য কারো ওয়েবসাইট ভিজিট করা ইত্যাদি ইত্যাদি। আর এই কাজগুলো এতটাই সহজ যে আপনার যদি অনলাইন প্লাটফর্ম সম্পর্কে তেমন কোনো অভিজ্ঞতা নাও থাকে তারপরও আপনি এগুলোতে কাজ করতে পারবেন।

See also  ডিজিটাল মার্কেটিং করে কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করা যায়

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা যায়?

মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করা যায় এই কথাটি জানার পর এবার আপনার মনে একটি প্রশ্ন জাগতে পারে যে, মোবাইল দিয়ে কি ফ্রিল্যান্সিং করা যায়। আর এই প্রশ্নের উত্তরটি দুই ধরনের হয়ে থাকে। কেউ কেউ বলে মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা সম্ভব আবার কেউ কেউ বলে মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় না। তবে বিষয়টা আসলে অন্য কিছু।

যেমন ধরুন ফ্রিল্যান্সিংয়ের যেসব বড় বড় কাজ আছে যেমন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব ডিজাইন, প্রোগ্রামিং। তো এই ধরণের কাজগুলো কিন্তু আপনি কোনো ভাবেই আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে করতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার কাছে একটি ভালো মানের কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ থাকতে হবে।

তবে এই কাজগুলো বাদে ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মে আরো অনেক সহজ এবং ছোট ছোট কাজ আছে। যেমন ডাটা এন্ট্রির মত কাজগুলো। আর এই কাজগুলো আপনি আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে করতে পারবেন। 

আর এই কারণগুলোর জন্যই কিন্তু অনেকেই বলে যে মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় না আবার অনেকেই বলে যে মোবাইল দিয়ে ফেলেছেন করা যায়। তবে আমার যুক্তি অনুযায়ী আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে একটি কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ কিনতে হবে। কারণ ফ্রিল্যান্সিং হল একটি প্রফেশনাল মার্কেটপ্লেস যেখানে মোবাইল দিয়ে কাজ করা সম্ভব হবে না।

আমাদের শেষকথা 

আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেলে আমি অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে করার বেশ কিছু উপায় নিয়ে আলোচনা করেছি। এর পাশাপাশি আপনি কি আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন কিনা সে বিষয়ে ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। 

আশা করি আপনার মধ্যে এই সম্পর্কে আর কোন বিষয়ে অজানা নেই। তবে এরপরও যদি আপনার মনে কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আর আমাদের এই পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button